আজকে এই পোস্টে আমি পানি পান করার উপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করবো। আমরা সকলেই জানি যে,পানির অপর নাম জিবন। কিন্তু পানি খেলে কি হয় বা পানির উপকারিতা সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি না,পানি আমাদের শরীরে যে সব উপকার করে থাকে তা আলোচনা করা হলো__  

পানি পান করার উপকারিতা

১.শরীরে তরলের ভারসাম্য বজায় রাখেঃ

 পানি আপনার শরীরের তরলের ভারসাম্য বজায় রাখে, পরিপাকতন্ত্র থেকে নানা ধরনের পুষ্টি উপাদান গ্রহণ করে এবং হজম করা, এবং  শরীরের তাপমাত্রা ঠিক রাখে। পানি পাকস্থলী পরিষ্কার রাখতে সহায়তা করে, এবং পাকস্থলীর স্বাভাবিক কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে,  যা কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সাহায্য করে।

২. ওজন নিয়ন্ত্রণ করেঃ 

পানি পান করলে আমাদের পেট  পূর্ণ মনে হয়, ফলে আমাদের ক্যালোরি কম খাওয়া হয়। তাই পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করলে ওজন সহজেই কমে যায়।

৩. কিডনি ভালো রাখেঃ 

পর্যাপ্ত পানি পান করলে শরীরের বিষাক্ত পদার্থগুলো ঘাম এবং মূত্রের সাহায্যে বের হয়ে পড়ে। এছাড়াও কিডনিতে পাথর এবং মূত্রনালীর সংক্রামন ঝুঁকি কমে যায়।

৪. ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করেঃ

পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করলে আমাদের শরীরের রক্তের ক্ষতিকারক উপাদান গুলো দ্রুত বের হয়ে যায়। ফলে ত্বকের যাবতীয় সমস্যা কমে গিয়ে  ত্বক আরো উজ্জল ও প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে।

৫. ক্লান্তি ভাব কমায়ঃ  

শরীরে পানির অভাব হলে শরীর দুর্বল লাগে, পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি খেলে হৃদপিন্ডের রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া সচল হয় এবং শরীরের ক্লান্তি অনেকটাই দূর হয়ে যায়। এছাড়াও শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।

৬. ব্যথা কমাতে সাহায্য করেঃ 

পানি নতুন রক্ত কোষ এবং মাংসপেশির কোষ তৈরি করা,জয়েন্টগুলোকে  গুলোকে লুব্রিকেশন করা এবং মাংসপেশি আরো স্থিতিস্থাপক রাখতে সাহায্য করে পানি। এছাড়াও মাথাব্যথা ও পিঠের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।

৭. মানসিক চাপ কমায়:

 মস্তিষ্কের ৭০% থেকে ৮০%  টিস্যূ পানি দ্বারা পরিপূর্ণ। শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি না থাকলে মানুষ বিষণ্ণতায় ভোগে। পানি মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে, এবং সারা দিন মস্তিষ্ক সচল রাখে।

Previous Post Next Post